আপস্টক্স লঞ্চ করল ‘ইনভেস্ট রাইট’

ওয়েব ডেস্ক; ৭ এপ্রিল : আপস্টক্স ‘ইনভেস্ট রাইট’ নামে এক নতুন ক্যাম্পেন চালু করেছে, যাতে মানুষকে কোথায় লগ্নি করতে হবে, কখন লগ্নি করতে হবে এবং সবচেয়ে বড় কথা কেন লগ্নি করতে হবে তা শিখতে সাহায্য করা যায়।

এই ক্যাম্পেনের মাধ্যমে আপস্টক্স ভারতের মানুষ যেভাবে লগ্নি করেন তা বদলে ফেলতে চেষ্টা করছে। লগ্নি করার কাজটাকে আরও সহজ, আরও নিজস্ব বোধনির্ভর এবং উপভোগ্য করে তোলার চেষ্টা করছে। ঠিক যেভাবে আইপিএল গত এক দশকে ভারতীয় ক্রিকেটের রূপান্তর ঘটিয়েছে এবং নতুন পথ দেখিয়েছে।

আজকাল মানুষ লগ্নি করতে চান কিন্তু প্রায়শই দ্বিধাগ্রস্ত হয়ে পড়েন কারণ সামনে অজস্র বিকল্প। তাই তাঁদের সাহায্য করার জন্য আপস্টক্স যাবতীয় জটিল কাজগুলো এবং পরিশ্রমটুকু করে লগ্নি করার কাজটা সহজ করে দিয়েছে।

ভারত যে বাড়ছে এবং ইকুইটি অংশগ্রহণের মধ্যে দিয়ে একজন ভারতের বৃদ্ধি থেকে লাভ করতে পারে, একথায় বিশ্বাস রেখে আপস্টক্সের মূল ক্যাম্পেন জোর দিয়েছে ভারতে কেমন করে লগ্নি করা যায় তার উপরে। আমরা লগ্নিকারীদের ইনডেক্স ফান্ডস চিনিয়ে দিচ্ছি। এটি বাজারের ওঠানামার উপর নজর রাখার একটি পদ্ধতি। মানুষকে এটি চিনিয়ে দিয়ে আপস্টক্স তাঁদের মুদ্রাস্ফীতিকে হারানোর এবং নিজের সম্পদ বাড়ানোর এক সাশ্রয়কারী, সহজ ও দীর্ঘমেয়াদি সমাধান জোগাচ্ছে।

তবে মিউচুয়াল ফান্ডসের মধ্যেও একজনের কাছে অনেকগুলো বিকল্প রয়েছে। তাই ব্যাপারটিকে আরও সহজ করে তুলতে আপস্টক্স কয়েকশো মিউচুয়াল ফান্ডকে তাদের রিস্ক অ্যান্ড রিওয়ার্ড রেশিও অনুযায়ী মূল্যায়ন করার বিরাট কাজটা করেছে এবং তা থেকে প্রত্যেক বিভাগের কয়েকটা শীর্ষস্থানীয় ফান্ডকে চিহ্নিত করেছে। ফান্ডগুলোর এই কিউরেটেড তালিকা এবং বিশেষজ্ঞদের বিশ্লেষণ সমেত আপস্টক্স ব্যবহারকারীদের মিউচুয়াল ফান্ডে লগ্নি করার সেরা ইন-অ্যাপ অভিজ্ঞতা দিতে চেষ্টা করছে। এছাড়াও এই ব্র্যান্ড তথ্য ও গবেষণার সুযোগ দিচ্ছে, যাতে লগ্নিকারী ভাল করে জেনেশুনে সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

এই ফিচার ছাড়াও আপস্টক্সের লক্ষ্য ভারতীয়দের লগ্নির সহজ সত্যগুলো সম্পর্কে অবগত করা। যেমন কেউ যদি মাত্র ৫০০০ টাকার একটি SIP করেন যা ১২.৫% রিটার্ন দেয় এবং ২৫ বছর বাজারে লগ্নি করে রাখেন, তাহলে তাঁর টাকা এক কোটিতে গিয়ে দাঁড়াতে পারে। এ থেকে কম্পাউন্ডিংয়ের শক্তি বোঝা যায়। আপস্টক্স এরকম আরও কিছু চোখ খুলে দেওয়া সত্য জানিয়ে দেয় যা অনুসরণ করা সহজ। প্রত্যেকটি সত্য জানানোর সঙ্গে সঙ্গে অ্যাপ ব্যবহারকারীদের করণীয় পদক্ষেপগুলো জানিয়ে দিয়ে সফল হতে সাহায্য করা হয়। গোটা ক্যাম্পেন জুড়ে আপস্টক্স মিউচুয়াল ফান্ডস, টেকনিকাল অ্যানালিসিস, অপশন ট্রেডিং ও আরও নানা জিনিস সম্পর্কে একগুচ্ছ অনলাইন ও অফলাইন লার্নিং সেশন আয়োজন করছে। এগুলোর মাধ্যমে আপস্টক্সের লক্ষ্য মানুষকে লগ্নি সম্পর্কে এক সামগ্রিক, ৩৬০ ডিগ্রি দৃষ্টিভঙ্গি জোগানো। এতে তাঁরা অ্যাপের মাধ্যমেই শিখতে পারবেন, সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন, লগ্নি করতে পারবেন এবং বেচাকেনা করতে পারবেন।

এই ধরনের ঘটনাবলীর মাধ্যমে এই ক্যাম্পেন লগ্নিকারীদের মধ্যে সচেতনতা, বিবেচনা এবং ব্র্যান্ডের প্রতি ভালবাসা বাড়ানোর চেষ্টা করছে।
এই ক্যাম্পেন সম্পর্কে কবিতা সুব্রমনিয়ান, কো-ফাউন্ডার, আপস্টক্স বললেন “মিউচুয়াল ফান্ড লগ্নিকারীদের নিজেদের পোর্টফোলিওতে বৈচিত্র্য আনার এবং অর্থনীতির বিভিন্ন ক্ষেত্রের বৃদ্ধির সম্ভাবনায় অংশগ্রহণ করার দারুণ সুযোগ দেয়। আমাদের বিশ্বাস আর্থিক অন্তর্ভুক্তি ভারতের অর্থনৈতিক বৃদ্ধি ও উন্নয়নের জন্য অবশ্যপ্রয়োজনীয়। আপস্টক্সে আমাদের উচ্চাশা হল ভাল মানের লগ্নি পরামর্শ ও পথনির্দেশ প্রত্যেক লগ্নিকারীর নাগালের মধ্যে নিয়ে আসা। সেকথা মাথায় রেখে আমাদের নতুন ক্যাম্পেন ডিজাইন করা হয়েছে ভারতের আরও বেশি মানুষকে সেইসব উপায়, সংস্থান এবং সহায়তা জোগানোর জন্য, যা দিয়ে তাঁরা জেনেশুনে লগ্নির সিদ্ধান্ত নিতে পারেন এবং সঠিক ধরনের ফান্ডে লগ্নি করতে পারেন। আমরা সমস্ত ভারতীয়কে নিজের আর্থিক দিকটা নিয়ন্ত্রণ করার এবং তাঁদের ও তাঁদের পরিবারের জন্য এক উন্নততর ভবিষ্যৎ গড়ে তোলার মত শক্তিশালী করে তুলতে দায়বদ্ধ। আর্থিক অন্তর্ভুক্তির প্রচার করে এবং ভাল মানের লগ্নি পরামর্শ আরও বেশি মানুষের নাগালে নিয়ে এসে আমরা আরও সমৃদ্ধিশালী অর্থনীতি গঠন করতে সাহায্য করতে পারব বলে আমাদের বিশ্বাস।”

এই ক্যাম্পেনের লক্ষ্য ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সী ব্যক্তিরা এবং জোর দেওয়া হচ্ছে সারা ভারতের টিয়ার ২ ও ৩ সেগমেন্টের উপর। এই ক্যাম্পেন একাধিক চ্যানেলে চালানো হবে, যার মধ্যে ডিজিটাল, সোশাল এবং ছাপা মিডিয়াও আছে। এই ক্যাম্পেনের সহায়তা করা হবে টার্গেট সেগমেন্টের মধ্যে সচেতনতা তৈরি ও বিবেচনার স্বার্থে অন-গ্রাউন্ড অ্যাকটিভেশন দিয়ে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.